একাদশের বই কোথায়? পিডিএফে কি সবার সমস্যা মিটবে?

Spread the love

একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু পড়ার বই কোথায় গেল? বৃহস্পতিবার এই ইস্যুকে সামনে রেখে আন্দোলনে নামে বামেদের ছাত্র যুব সংগঠন। তাদের দাবি বহু ছাত্রছাত্রী তাদের পাঠ্য বই পায়নি। এর জেরে তারা সমস্যায় পড়ে গিয়েছে। সবার পক্ষে পিডিএফ দিয়ে চালানো সম্ভব নয়। বাংলার বহু প্রত্যন্ত গ্রাম রয়েছে যেখানে ইন্টারনেটের কানেকশন এখনও যথাযথ নেই। সেক্ষেত্রে তাদের পক্ষে এই পিডিএফ ডাউনলোড করে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া এককথায় অসম্ভব। 

সরকার ছাত্রছাত্রীদের স্মার্ট ফোন দিয়েছে। সেই ফোনে বুঁদ হয়ে আছে ছাত্রছাত্রীদের অনেকেই। কিন্তু এবার প্রশ্ন সরকারি শিক্ষাদফতরের যে বই দেওয়ার কথা ছিল সেই বই কোথায় গেল? এবার সেই প্রশ্ন তুলেই আন্দোলনে নামল বাম ছাত্র যুব সংগঠন। উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ পিডিএফ আপলোড করে তাদের সাইটে। এগুলি হল মূলত ডিজিটাল কপি। মূলত যেহেতু বই সঠিক সময়ে পৌঁছে দেওয়া যাচ্ছে না সেকারণেই এই পিডিএফ আপলোড করে দেওয়া হয়। কিন্তু এখানেই প্রশ্ন রাজ্য়ের সমস্ত পড়ুয়া তো কলকাতা শহরে থাকে না। বহু প্রত্যন্ত গ্রাম রয়েছে যেখানে এভাবে পিডিএফে বই পড়াটা কার্যত অসম্ভব। সেই পড়ুয়া এবার কি করবে?

তবে সূত্রের খবর সমস্ত পড়ুয়া যাতে দ্রুত বই পান তার জন্য সরকারি স্তরে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। 

এর জেরে ইতিমধ্য়েই পড়ুয়াদের মধ্য়ে অসন্তোষ ছড়িয়েছিল। আর সেই ইস্যুকেই সামনে এনে এবার আন্দোলনে নামল বামেদের ছাত্র যুব সংগঠন। কেন সঠিক সময় বই মিলবে না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তারা। 

ছাত্র ফেডারেশনে রাজ্য কমিটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, একাদশ শ্রেণির বই হারিয়ে গিয়েছে। আমাদের শিক্ষার পরিবেশ হারিয়ে যাচ্ছে। সিলেবাসের উপর প্রথমে আঘাত হানা হয়েছে। এবার বইটাই দেওয়া হচ্ছে না। যে আগামী প্রজন্মের দিকে সকলে মুখিয়ে আছে, সেই ছাত্রছাত্রীদের হাতে বই দেওয়া হচ্ছে না। শিক্ষা দফতর তাহলে কী করছে? সেই প্রশ্নটাই জানতে চাইছি আমরা। 

আসলে এক অদ্ভূত সমস্য়ায় পড়েছে এবার ছাত্রছাত্রীরা। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির নতুন সিলেবাসে ক্লাস শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু বই মিলছে না। সরকার থেকে যে বই সরবরাহ করা হয় সেই বই যথাযথভাবে মিলছে না কোথাও।

২০২৬ সাল থেকে সেমেস্টার পদ্ধতিতে উচ্চমাধ্য়মিক পরীক্ষা হওয়ার কথা রয়েছে। এবছর একাদশ শ্রেণিতে যে পড়ুয়ারা ভর্তি হয়েছেন তাদের চারটি পরীক্ষা দিতে হবে। কিন্তু পড়বে কী করে? বই তো মিলছে না। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *