সাইনাসের ব্যথা কমবে কি করে ?

Spread the love

সাইনাস হলো আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। নাকের দুই পাশে কিছু হাড় থাকে এবং এর ভেতরে একধরনের কুঠুরি থাকে। এখানে স্বাভাবিকভাবে বাতাস জমা থাকে। ধুলাবালিযুক্ত পরিবেশে বেশিক্ষণ থাকলে এসব স্থানে ইনফেকশন দেখা দেয়। ফলে সেখানে জমতে পারে কফ বা মিউকাস। সাইনাসের রোগীরা প্রায়ই যে সমস্যায় ভোগেন তা হলো মাথা ব্যথা। কিন্তু আপনি কি জানেন, ঘরোয়া কিছু টিপস মেনে চললেই সাইনাসের ব্যথাকে জয় করা সম্ভব। এ সমস্যা মূলত ভাইরাসজনিত সংক্রমণের কারণেই হয়ে থাকে। এ সমস্যা থেকেই সাইনাসের রোগীরা ভোগেন প্রচণ্ড মাথা ব্যথার যন্ত্রণায়। এছাড়া অ্যালার্জি এবং নাকের কাঠামোগত কারণে নাক বন্ধ হয়ে এ সমস্যা থাকে।

এ ধরনের লক্ষণ দেখা দিলে অবহেলা না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তবেই রোগ থেকে মিলবে মুক্তি। তবে চিকিৎসকের চিকিৎসা নেয়ার আগ পর্যন্ত সাইনাসের মাথা ব্যথাকে জয় করতে চাইলে মেনে চলতে পারেন নিচের তিনটি টিপস।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাইনাস রোগটি ইনফেকশন ও অ্যালার্জি থেকে হয়। এ রোগে শিশু থেকে যেকোনো বয়সিরাই আক্রান্ত হতে পারে। এ রোগে আক্রান্ত হলে সাইনাস রোগীদের মধ্যে যেসব লক্ষণ বা উপসর্গ স্পষ্ট হয়ে ওঠে, তাহলো খুব মাথাব্যথা, মাথা ভার হয়ে যাওয়া, জ্বর আসা, বমি বমি ভাব, গরমেও ঠান্ডা অনুভব হওয়া ইত্যাদি।
 

১. স্টিম নিন: প্রথমে জল গরম করুন। তা ফুটতে শুরু করলে নামিয়ে নিন। সেই গরম জল থেকে বের হওয়া ধোঁয়া নিতে মাথায় একটা কাপড় চাপিয়ে নিন। এখন নাক দিয়ে ধোঁয়া টানুন। এভাবে দিনে ৩-৪ বার করুন।
 

২. নাক পরিষ্কার করুন: কুসুম গরম জল দিয়ে নাক পরিষ্কার করতে পারেন। কারণ গরম জল অনেক ইনফেকশন সহজে দূর করে দিতে পারে। চাইলে গরম জলে নিম বা তুলসি পাতাও দিয়ে নিতে পারেন।


৩. আদা চা: সাইনাসের মাথা ব্যথায় আদা চা নিয়মিত খেতে হবে। চা-এ থাকা বিশেষ কিছু উপাদানের সঙ্গে থাকা আদায় অ্যান্টিইফ্লেমেটরি গুণ সাইনাসের মাথা ব্যথা দূর করতে কাজ করে। চায়ে মধু মেশালে ভেষজ উপকারিতা আরও বেশি মিলবে।  কারণ মধুর রয়েছে ব্যাকটেরিয়ানাশক ক্ষমতা। তাই সাইনাসের যন্ত্রণাও কমাতে আদা চা-কেও সঙ্গী করে নিতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *