Mamata on judiciary: দেশের প্রধান বিচারপতির সামনে অনুরোধ মমতার

Spread the love

শনিবার কলকাতার একটি পাঁচতারা হোটেলে শুরু হয়েছে ন্যাশনাল জুডিশিয়াল অ্যাকাডেমির ২ দিনের সম্মেলন। সেখানে শনিবার সকালে এক মঞ্চে হাজির ছিলেন ভারতবর্ষের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়(Dy Chandrachur) ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)।বিচারব্যবস্থায় যেন কোনও রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্টতা না থাকে। দেশের প্রধান বিচারপতির সামনে দাঁড়িয়ে অন্যান্য বিচারপতিদের এই অনুরোধ করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee)।

এদিন নিজের বক্তব্যের একেবারে শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যের প্রতিধ্বনী শোনা যায় প্রধান বিচারপতির কণ্ঠেও। তিনি বলেন, বিচারপতিরা যেন সমাজের প্রতি তাঁদের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বিচার না করেন। বিচার করতে হবে সমাজকে নিয়ে সংবিধানের দৃষ্টিভঙ্গি মাথায় রেখে। প্রধান বিচারপতি যখন একথা বলছেন তখন মঞ্চে হাত তালি দিতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। ২ দিনের এই সম্মেলনে সাংবিধানিক নৈতিকতা-সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন দেশের বিচারপতিরা।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়(Mamata Banerjee) তাঁর সংক্ষিপ্ত ভাষণে বলেন, ‘কথাটা বলার আগে আমি সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। কাউকে হেনস্থা করার কোনও উদ্দেশ আমার নেই। আমার বিনম্র অনুরোধ, বিচারব্যবস্থায় যেন কোনও রাজনৈতিক পক্ষপাত না থাকে। বিচারব্যবস্থায় বিশুদ্ধতা, সততা, গোপনীয়তা বজায় থাকে।’

মমতা(Mamata Banerjee) বলেন, ‘বিচারব্যবস্থার জন্য সরকার নয়, মানুষের জন্য বিচারব্যবস্থা হওয়া উচিত। বিচারব্যবস্থা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে না পারলে মানুষ বিচারের আশায় কোথায় যাবে? যখন আমারা ভয়ঙ্কর নির্যাতন দেখি তখন আমরা আশা করি, শুধুমাত্র বিচারব্যবস্থাই এই সমস্যার সমাধান করতে পারবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *