Maternity Leaves: ১৮০ দিন পর্যন্ত মাতৃত্বকালীন ছুটি

Spread the love

ছুটির বিষয়ে বড় পরিবর্তন শুরু করেছে। কেন্দ্রীয় সরকার মাতৃত্বকালীন ছুটির(Maternity Leaves) বিষয়ে বড় পরিবর্তন শুরু করেছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের পর এখন সরকারি কর্মচারীরা ১৮০ দিন পর্যন্ত মাতৃত্বকালীন ছুটি পেতে পারবেন। সারোগেসি সংক্রান্ত নিয়মেরও সংশোধন করেছে।১৮ জুন কর্মী ও প্রশিক্ষণ বিভাগ এই বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।

নতুন নিয়মগুলি কার্যকর করতে সরকার কেন্দ্রীয় সিভিল সার্ভিসেস, ১৯৭২ সংশোধন করেছে। এখন কেন্দ্রীয় কর্মীরা এর সুবিধা পাবেন। সংশোধনী অনুসারে, সারোগেসির জন্য নিয়োগ করা একজন মা, যাদের দুটির কম জীবিত সন্তান রয়েছে, তাঁরাও চাইল্ড কেয়ার ছুটি পাওয়ার যোগ্য হবেন। এর পাশাপাশি সারোগেসির জন্য পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েও বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এখন, কমিশনপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের পিতা যাদের দুটির কম জীবিত সন্তান রয়েছে তারা সন্তানের জন্মের ছয় মাসের মধ্যে ১৫ দিনের পিতৃত্বকালীন ছুটির অধিকারী হবেন। এই অনুসারে, কেন্দ্রীয় সরকারের সেই সব মহিলা কর্মীরা, যাঁরা সারোগেসির(Surrogacy) মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন, তাঁরা এখন ছয় মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটির অধিকারী হবেন। এই ধরনের একজন মহিলা কর্মচারীর জন্য, যে মহিলা গর্ভধারণ করেন (সারোগেট মা) তিনিও যদি কেন্দ্রের একজন কর্মচারী হন, তবে উভয় মা ছয় মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটি পাবেন। তবে শর্ত থাকবে, এই ধরনের নারীর জীবিত সন্তানের সংখ্যা দুইয়ের কম হতে হবে।

সারোগেট মায়ের পাশাপাশি অন্য মাকেও এই নিয়মে পালক মা (presiding mother) বলা হয়েছে। ‘পালক মা’ সন্তানের যত্ন নেওয়ার জন্য এই ছুটি পাবেন। শিশুর বয়স ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত যে কোনও সময়ের মধ্যে এই ছুটি নেওয়া যেতে পারে। যদি সন্তানের অভিভাবক পিতাও একজন সরকারি কর্মচারী হন, তাহলে তিনিও ১৫ দিনের পিতৃত্বকালীন ছুটির জন্য যোগ্য হবেন। ১৮ জুন থেকে নতুন নিয়ম কার্যকর হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকারের জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, সারোগেসির মাধ্যমে সন্তান জন্মদানকারী মায়েদের ছুটির প্রয়োজনীয়তার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সরকারের তরফে বলা হয়েছে যে, এখন সারোগেসির ক্ষেত্রে ১৮০ দিন পর্যন্ত মাতৃত্বকালীন ছুটি নেওয়া যেতে পারে। একজন কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারী যিনি একজন সারোগেট মা, তিনি ১৮০ দিনের জন্য ছুটি পেতে পারবেন। সংশোধিত নিয়মের বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে কর্মী মন্ত্রণালয় (DoPT)। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *