Roberto Baggio Robbery: কিংবদন্তি ফুটবলারের বাড়িতে ভয়াবহ ডাকাতি

Spread the love

১৯৯৪ সালের ফুটবল বিশ্বকাপে(World Cup) বিপক্ষ ডিফেন্সের ঘুম উড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি। তিনি রবার্তো বাজ্জিয়ো(Roberto Baggio)। খেলা ছেড়েছেন দীর্ঘদিন। তবুও সমান ভাবে জনপ্রিয় এই কিংবদন্তি ফুটবল তারকা। তাঁর বাড়িতেই ঘটে গিয়েছে এক ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনা। তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদানে ভর করেই সেবার ফিফা আয়োজিত ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলেছিল ইতালি(Italy)। জানা যায়, সেই ঘটনায় ডাকাত দলের বিরুদ্ধে লড়াই করতে গিয়ে বাজে ভাবে জখম হয়েছেন রবার্তো বাজ্জিয়ো(Roberto Baggio)। ডাকাতি যদিও আটকাতে পারেননি তিনি। তবে তাঁর মাথা ফেটে গিয়েছে। প্রচুর রক্তপাত হয়েছে তাঁর। ফলে ৫৭ বছর বয়সী বাজ্জিয়োকে এবার ভর্তি করতে হয়েছে হাসপাতালেও। অস্ত্র ধরে রীতিমতো রোমহর্ষক ডাকাতি ঘটানো হয়েছে বাজ্জিয়োর বাড়িতে। লুটপাটের পাশাপাশি বাজে ভাবে মারধরও করা হয়েছে বাজ্জিয়োকে। অন্তত পাঁচ জন অস্ত্রধারী ডাকাত জোরপূর্বক বাজ্জিয়োর উত্তর ইতালির বাড়িতে ঢুকে পড়ে। ৫৭ বছর বয়সী প্রাক্তন এই ফুটবলার এগিয়ে এসে দুর্বৃত্তদের ঠেকানোর চেষ্টা করেন। সেই সময়ে এক ডাকাত বন্দুকের বাঁট দিয়ে আঘাত করেন বাজ্জিয়োর মাথায়। ফলে তাঁর মাথা ফেটে যায়। তারকাকে পরিবারসহ একটি ঘরে আটকে রেখে ডাকাত দল ডাকাতি করে। সোনা, দামি ঘড়ি এবং নগদ অর্থ লুট করে নিয়ে পালিয়েছে ডাকাতরা।২০২৪ সালের ইউরোতে স্পেন বনাম ইতালির ম্যাচ দেখতে যখন ব্যস্ত ছিল সবাই, সেই সময়েই ঘটে যায় এই ভয়াবহ ঘটনা। বাজ্জিয়ো গুরুতর আহত হলেও, তাঁর পরিবারের বাকি সকলেই সুরক্ষিত রয়েছেন।

ঘটনার পরে বাজ্জিয়ো একটি বিবৃতি দিয়েছেন, সেখানে বলেছেন, ‘প্রথমত সবার কাছ থেকে আমি এবং আমার পরিবার যে ভালোবাসা পেয়েছি তার জন্য অশেষ ধন্যবাদ। এমন পরিস্থিতিতে যে কোনও কিছু ঘটে যেতে পারত। সৌভাগ্যবশত বড় কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি। এই নৃশংসতা থেকে পরিবার রক্ষা পেয়েছে। আমার কয়েকটি সেলাই পড়েছে। আতঙ্কের মধ্য দিয়ে সব কিছু শেষ হয়েছে।’ডাকাতি শেষ করে ডাকাতরা চলে যাওয়ার পরে দরজা ভেঙে বেরিয়ে এসে বাজ্জিয়ো পুলিশকে ফোন করেন। পুলিশের হস্তক্ষেপে আরজিগনানোর একটি হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা শুরু হয় বাজ্জিয়োর। তাঁর কপালে একাধিক সেলাই পড়েছে। বাজ্জিয়ো ছাড়া তাঁর পরিবারের বাকি সদস্যদের অবশ্য কোনও বড় ধরনের ক্ষতি হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *